হামদর্দ ও আর এস

৳ 100৳ 150 (-33%)

In stock

আবে নমক শিরীন
খাওয়ার স্যালাইন

Compare

হামদর্দ ও আর এস গ্লুকোজসহ ওরাল রিহাইড্রেশন সল্টের সমন্বয়ে প্রস্তুত, যা ডায়রিয়া, কলেরা বা যে কোন ধরণের পাতলা পায়খানাজনিত পানি স্বল্পতা ও ইলেকট্রোলাইটের ভারসাম্যতা নিয়ন্ত্রণে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

 

উপাদান: প্রতি স্যাচেটে আছে- Sodium Chloride (নমক তাআম) ১.৩০ গ্রাম, Sodium Citrate (নমক তুরশ) ১.৪৫ গ্রাম, Potassium Chloride (নুত্রূন) ০.৭৫ গ্রাম এবং Dextrose/Sucrose (চিনি) ৬.৭৫ গ্রাম।

 

নির্দেশনা: তীব্র ডায়রিয়াজনিত পানিস্বল্পতা, ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্যহীনতা, কলেরা, বমি বমি-ভাব ও বমি, খাদ্যে বিষক্রিয়া।

 

প্রস্তুত প্রণালী: ৫০০ মিলি বা ২ পোয়া খাবার পানির সাথে হামদর্দ ও আর এস ১টি স্যাচেটের সবটুকু মিশ্রণ মিশিয়ে খাওয়ার স্যালাইন তৈরি করতে হবে।

খাবার স্যালাইন খাওয়ানোর নিয়মাবলী

২ বছর পর্যন্ত: প্রতিবার পাতলা পায়খানার পর ১০-২০ চা চামচ হামদর্দ ও আর এস মেশানো পানীয় খাওয়াতে হবে।

২-১০ বছর পর্যন্ত: প্রতিবার পাতলা পায়খানার পর আধা গ্লাস হতে ১ গ্লাস হামদর্দ ও আর এস মেশানো পানীয় খাওয়াতে হবে।

১০ বছরের উর্ধ্বে: প্রতিবার পাতলা পায়খানার পর ১-২ গ্লাস হামদর্দ ও আর এস মেশানো পানীয় খাওয়াতে হবে।

 

পরামর্শ: যতক্ষন পর্যন্ত পাতলা পায়খানা ভালো না হয় ততক্ষন পর্যন্ত উপরোক্ত নিয়মে ওরাল স্যালাইন খাওয়াতে হবে। ওরাল স্যালাইন চলাকালীন সময়ে শিশুদের ক্ষেত্রে মায়ের দুগ্ধপান বা বড়দের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক খাবার বন্ধ করা যাবে না। স্যালাইন গরম পানির সাথে মিশানো যাবে না বা মিশ্রিত দ্রবণটিকে গরম করা যাবে না। ১২ ঘন্টা পর প্রস্তুতকৃত স্যালাইন ফেলে দিন।

 

প্রতিনির্দেশ: কোন প্রতিনির্দেশ নেই।

 

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া: নির্ধারিত মাত্রায় সেবনে কোন উল্লেখযোগ্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া পরিলক্ষিত হয়নি।

 

সতর্কতা: শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

 

সংরক্ষণ: আলো থেকে দূরে, ঠান্ডা ও শুষ্ক স্থানে রাখুন।

 

পরিবেশনা: প্রতি বাক্সে ২০ স্যাচেট ওরাল স্যালাইন বিদ্যমান।

 

মূল্য: প্রতি বাক্স ১০০.০০ টাকা, প্রতি স্যাচেট ৫.০০ টাকা

Be the first to review “হামদর্দ ও আর এস”

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Reviews

There are no reviews yet.

Main Menu

হামদর্দ ও আর এস

৳ 100৳ 150 (-33%)

Add to Cart